সুষ্ঠু নির্বাচন দিতে না চাওয়ার কারন কি বললেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ ?? ভয় নাকি অন্য কিছু ?

বিপুল ভোটে পরাজিত হওয়ার ভয়ে আওয়ামী লীগ সুষ্ঠু নির্বাচন দিতে চায় না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ।

তিনি বলেছেন, আওয়ামী লীগ জানে আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন যদি অবাধ সুষ্ঠু হয় তাহলে তার ফলাফল কি হবে। তাই আন্দোলনের মাধ্যমে এ সরকারকে সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনে বাধ্য করা হবে।

শুক্রবার (১২ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে জিয়াউর রহমানের ৮২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে জিয়া সাংস্কৃতিক সংগঠন (জিসাস) আয়োজিত ‘আমাদের সংস্কৃতি ও শহীদ জিয়া’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

মওদুদ আহমদ বলেন, সরকার, বিরোধী দলের সঙ্গে কোনো শান্তিপূর্ণ সমঝোতায় বিশ্বাস করে না। বরং বিরোধীদলকে কিভাবে নিশ্চিহ্ন করতে হবে, সেই কাজে তারা নিয়োজিত আছে। তাদের পুলিশ, র‌্যাবের ট্রেনিং হল কিভাবে বিরোধী দলকে ঘায়েল করা যাবে, নিশ্চিহ্ন করা যাবে। এজন্য আন্দোলন ছাড়া অন্য কোনো বিকল্প নাই।

জনগণের সমর্থন নিয়ে জনবিস্ফোরণের মাধ্যমে এ সরকারকে দেশে একটি নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে আগামী জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত করতে বাধ্য করা হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

মওদুদ বলেন, আমরা একদলীয় শাসন দেশে দেখতে চাই না। আমরা আমাদের গণতন্ত্র ফিরে পেতে চাই। ভোটের অধিকার ফিরে আনতে চাই। আমরা আমাদের বিচার বিভাগের স্বাধীনতা ফিরিয়ে আনতে চাই। সেটা ফিরে আনতেই আমাদের আন্দোলন। খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে আমাদের আন্দোলন ও নির্বাচনের প্রস্তুতি এক সঙ্গে চলবে।

দেশে মিথ্যাচারের রাজনীতি চলছে জানিয়ে তিনি বলেন, কোনো মন্ত্রী কার চেয়ে বেশি মিথ্যা কথা বলবেন, তার মনে হয় ততো বেশি পদন্নতি হবে। আমরা আমাদের বর্তমান প্রজন্মকে মিথ্যা বলা শেখাচ্ছি। এ জন্য সরকারের কাছ থেকে কিছু আশা করা যায় না। একদিন না একদিন এর অপবাদ তাদেরই বহন করতে হবে। এ মিথ্যাচারের মূল্য তাদের দিতেই হবে।

জিসাসের সভাপতি আবুল হাশেম রানার সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আবদুস সালাম, অভিনেত্রী শুলশান আরা, জিসাস ঢাকা বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক বোরহান উদ্দিন সরকার প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *