যে তালিকা চাইলো আ.লীগ – জেনে নিন বিস্তারিত

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপেরেশনের ৩৬টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের নাম চেয়েছে আওয়ামী লীগ।

দলের ওয়ার্ড কমিটিকে প্রতিটি নির্বাচনী এলাকার জন্য তিন জনের নাম দিতে বলা হয়েছে।

শনিবার ক্ষমতাসীন দলের দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে।

আনিসুল হকের মৃত্যুতে ফাঁকা হওয়া ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদ পূরণে আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি ভোটের দিন ঢাকার দুই সিটিতে যোগ হওয়া ৩৬টি ওয়ার্ডে ভোট হবে কাউন্সিলর পদে।

২০১৫ সালের এপ্রিলে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনে নির্বাচনের পর ঢাকার উত্তর ও দক্ষিণ অংশে ১৮টি করে ওয়ার্ড অন্তর্ভুক্ত হয়।

কিন্তু জনপ্রতিনিধি না থাকায় এসব এলাকার বাসিন্দারা নানা সমস্যায় পড়ছিলেন। ভোটের পর এসব সমস্যা সমাধানের পাশাপাশি উন্নয়নের দিকে থেকে পিছিয়ে থাকা এলাকায় গতি আসবে বলেও আশা করা হচ্ছে।

স্থানীয় সরকার আইন অনুযায়ী মেয়র পদে নির্বাচন দলীয় প্রতীকে হলেও কাউন্সিলর পদে নির্বাচন হয় নির্দলীয় প্রতীকে। তবে এই নির্বাচনেও দল থেকে সমর্থন দেয়া হয়।

আওয়ামী লীগের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, ঢাকার দুই সিটিতে নব-গঠিত ওয়ার্ড কাউন্সিলার নির্বাচনে দলের সম্ভাব্য প্রার্থীদের একটি প্যানেল তৈরি করা হবে।

এ জন্য ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্যদের নিয়ে বর্ধিত সভা করবে। সভায় প্রতিটি ওয়ার্ডের জন্য কমপক্ষে তিন জনের নাম দিতে বলা হয়েছে।

মহানগর, থানা ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের যৌথ স্বাক্ষরে প্রার্থীদের যোগ্যতা, নেতৃত্বের গুণাবলী ও জনপ্রিয়তা ইত্যাদি

বিষয় উল্লেখ করে ১৫ জানুয়ারির মধ্যে দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে এই তালিকা পাঠাতে হবে।

একই নিয়মাবলী সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডের কাউন্সিলার প্রার্থীদের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য।

আগামী ১৬ জানুয়ারি ঢাকা উত্তরে মেয়র প্রার্থী বাছাই করতে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার বিষয়ে মনোনয়ন বোর্ডের যে সভা হবে, সেখানেই কাউন্সিলর প্রার্থীকে সমর্থনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *