মাঠে খেলা হবে : কাকে এই হুমকি দিলো নাসিম

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, ‘আগামী জাতীয় নির্বাচনে আসুন, মাঠে খেলা হবে।’ নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করলে বিএনপি হারিয়ে যাবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

আজ শনিবার বিকেল ৫টার দিকে মুন্সীগঞ্জের টঙ্গিবাড়ী উপজেলার রংমেহের স্কুল মাঠে ৪৭তম বিজয় দিবস ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘বেগম জিয়ার দলকে বলি নির্বাচনে আসেন বা না আসেন কিছু আসে যায় না, কিন্তু নির্বাচনে যদি না আসেন আগামী সালে বাটি চালান দিলেও বিএনপিকে খুঁইজা পাওয়া যাবে না। নির্বাচন না করলে আপনারা হারিয়ে যাবেন। আওয়ামী লীগ নির্বাচনের দল, নির্বাচন আমরা করবই। মাঠে গিয়ে খেলা খেলবই। আপনারা যে হুমকি দেন, কি আন্দোলন আপনারা করবেন? আন্দোলন কিভাবে করতে হয় আমরা জানি। আমরা চ্যাম্পিয়ন, আমরা এখানে দাঁড়িয়ে আছি। মার খেয়েছি, মাঠ ছেড়ে কখনো যাই নাই।’

এ ছাড়াও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনেই আগামী নির্বাচন হবে বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেন, ‘আমি বলতে চাই, ভালোয় ভালোয় আপনারা নির্বাচনে আসেন। অবাধ এবং সুষ্ঠু নির্বাচন হবে এবং শেখ হাসিনার অধীনেই নির্বাচন হবে। আমরা সুযোগ দিয়েছিলাম খালেদা জিয়াকে। শেখ হাসিনা আহ্বান জানিয়েছিলেন, যে আসুন গণভবনে চা খাই, ঠিক করি কিভাবে নির্বাচন হবে। সেখানে বেগম খালেদা জিয়া হরতাল করে অবরোধ করে মানুষকে জ্বালিয়ে পুড়িয়ে নির্বাচন বন্ধ করার চেষ্টা করেছে। কিন্তু পারে নাই। আপনারা ভালোবাসেন বা না বাসেন ভোটের মাধ্যমের রায় দিতে হবে।’

ডিসেম্বরেই জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান মন্ত্রী। এই নির্বাচনে কেউ বাধা দিলে তার হাত ভেঙে দেওয়া হবে বলেও হুঁশিয়ারি দেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য নাসিম।

টঙ্গিবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জগলুল হালদার ভুতুর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ মহিউদ্দিন, মুন্সীগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি, কণ্ঠশিল্পী ও সংসদ সদস্য মমতাজ বেগম, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সোহানা তাহমিনা, টঙ্গিবাড়ী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার কাজী ওয়াহিদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাফিজ আল আসাদ বারেক প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *