এবার জানা গেলো সাকিবের ছুটিতে যাওয়ার আসল কারণ

তদিন এটি জানতেন না আপনারা, এবার জানা গেলো সাকিবের ছুটিতে যাওয়ার আসল কারণ। আসলে খুবই ব্যস্ত মানুষ তিনি। জাতীয় দল, ঘরোয়া ক্রিকেট ছাড়াও ব্যস্ত থাকেন বিদেশি টি-টোয়েন্টি লিগেও। বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের ব্যস্ততার এখানেই শেষ নয়।

বাণিজ্যিক জগতেওও তিনি বেশ ব্যস্ত মানুষ। নিজের কয়েকটা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান তো আছেই। এর বাইরে তিনি অসংখ্য বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের মডেল, শুভেচ্ছা দূত। জানা গেছে, আরো কিছু নতুন প্রতিষ্ঠানের মডেল বা শুভেচ্ছা দূত হতে চলেছেন দেশসেরা এ তারকা।

একটি সূত্র জানাচ্ছে, টেস্ট ফরম্যাট থেকে সাকিবের ৬ মাসের ছুটি চাওয়ার প্রধান কারণ বানিজ্যিক। সামনে নাকি বেশ কিছু শ্যূটিং আছে তার। সেখানে ব্যস্ত থাকতে হবে। যে কারণে টেস্ট থেকে ছুটি নিয়ে এ কাজগুলো সারতে চাইছেন সাকিব। সঙ্গে বিশ্রামের কাজটাও হয়ে গেল!

তবে সাকিবের এ দৃষ্টিভঙ্গি ব্যাপক সমালোচিত হচ্ছে। প্রশ্ন উঠেছে জাতীয় দলের প্রতি তার কমিটমেন্ট নিয়ে। বাংলাদেশ খুব বেশি টেস্ট ম্যাচ খেলা না। সমালোচকরা মনে করছেন, টেস্টে ছুটি না নিয়ে বিপিএল বা অন্য ঘরোয়া বা বিদেশি লিগে ছুটি নিতে পারতেন সাকিব। কিন্তু সেটা না করে টেস্ট থেকে ছুটি নিয়ে অর্থকেই বড় করে দেখেছেন বলে তাদের অভিযোগ।

বছরের অর্ধেকের বেশি সময় খেলার বাইরে থাকে জাতীয় দল। এর বাইরেও যদি কেউ ছুটি চেয়ে বসেন তাহলে সেটা বিসিবির জন্য বিব্রতকর। ছুটি না নেওয়ার জন্য বিসিবির পক্ষ থেকে বোঝানো হলেও সাকিব নাছড়বান্দা। তবে ৬ মাস নয়, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দুই টেস্টে আপাতত ছুটি মিলেছে তার।

সাকিব ছুটি চেয়েছিলেন ডিসেম্বরে শেষ দিকে দেশের মাটিতে অনুষ্ঠেয় বাংলাদেশ- শ্রীলঙ্কা টেস্ট সিরিজেও। তবে শ্রীলঙ্কা সিরিজে ছুটি চাওয়া বাড়াবাড়ি মনে করছে বিসিবি।

সূত্র: এমটি নিউজ২৪

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com