বিশ্বে মুসলমানরা শরণার্থী হচ্ছে কেন?: প্রধানমন্ত্রী

নিউ ইয়র্ক সফররত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘মিয়ানমারকে বলছি, আপনাদের নাগরিকদের ফিরিয়ে নিতে হবে। তাদের নাগরিক অধিকার ফিরিয়ে দিতে হবে। আজকে যারা বিপদে পড়েছে তাদের সাহায্য দেওয়া জরুরি।

এসময় প্রধানমন্ত্রী প্রশ্নরেখে বলেন, বিশ্বে মুসলমানরা শরণার্থী হচ্ছে কেন?

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার রাতে (বাংলাদেশ সময় বুধবার সকাল) নিউ ইয়র্কে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, যে ঘটনা ঘটেছে দলে দলে মানুষ বাংলাদেশে এসেছে। মানবিক কারণে নির্যাতিত মানুষকে আশ্রয় দিতে হয়েছে। আমরাও তো পাকিস্তানের আক্রমণে প্রতিবেশী দেশে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়েছিলাম। আমাদের ঘরবাড়ি পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল। গুলি করে মানুষ হত্যা করা হয়েছিল।’

কফি আনান কমিশন যে সুপারিশ দিয়েছিল তার বাস্তবায়ন করতে হবে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিনি রোহিঙ্গা সমস্যা নিয়ে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে কথা বলছেন। তিনি ইসলামি সহযোগিতা সংস্থার (ওআইসি) নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে বলেছেন, বিশ্বে মুসলমানরা শরণার্থী হচ্ছে কেন? ওআইসিভুক্ত মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে ঐক্যের ব্যাপারে তিনি জোর দিয়েছেন বলে জানান।

বাংলাদেশের নাগরিকদের শরণার্থী হওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর ১৯৭২ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ভারত থেকে সব শরণার্থী ফেরত এনেছিলেন। আর কোনও দেশ এতো দ্রুত ফেরত আনতে পারেনি।’

যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমানের সভাপতিত্বে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রীর ছেলে ও তথ্যপ্রযুক্তি–বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *